ভবনটি ছিল অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ, ১০ বার নোটিশ দিয়েছিলাম: ফায়ার ডিজি

বঙ্গবাজার মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাইন উদ্দিন। তিনি বলেছেন, ২০১৯ সালের ২রা এপ্রিল এই ভবনটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল। এরপর ১০ বার নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। ব্যানার টানানো হয়েছিল। ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে যা যা করা সম্ভব ছিল, আমরা করেছি। তারপরও এখানে ব্যবসা চলছে। আজ দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। সাড়ে ৬ ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে জানিয়ে তিনি বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে আছে, আর ছড়াবে না। তবে, পুরোপুরি নেভাতে আরেকটু সময় লাগবে। এসময় উৎসুক জনতার কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সময় লেগেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত সম্পর্কে ফায়ার সার্ভিসের ডিজি বলেন, অগ্নিকাণ্ডের কারণ আমরা জানি না।

আগুন নিভে যাওয়ার পরে এ ঘটনায় আমরা ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করব। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর আগুন লাগার কারণ বলা যাবে। এই ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও তদন্তের পর জানানো যাবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।
অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বিক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীদের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সদর দপ্তরে হামলার বিষয়ে তিনি বলেন, ফায়ার সার্ভিসের সকল পদবির কর্মচারীরা আপনাদের জন্য জীবন দেন। গত ১ বছরে ১৩ জন ফায়ারফাইটার শহীদ হয়েছে, যারা “অগ্নি বীর” খেতাব পেয়েছেন। আহত হয়েছেন ২৯ জন। এমনকি আজকে ৮ জন আহত হয়েছেন। তারপরও কেন বা কারা ফায়ার সার্ভিসের ওপর আঘাত হানল? এটা আমার বোধগম্য নয়। আমরা তো আপনাদের জন্যই জীবন দিচ্ছি।