সাটুরিয়ায় বিদ্যালয়ের নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার বালিয়াটী ঈশ্বর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষায় দুর্নীতি ও অনিয়মের মাধ্যমে প্রার্থী নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন এক পরীক্ষার্থী।

সূত্রে জানা গেছে, একজন সহকারী প্রধান শিক্ষক ও নিম্মমান সহকারী কাম- কম্পিউটার অপরারেট পদে নিয়োগ দেওয়ার জন্য সম্প্রতি পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। এতে ৩ জুলাই উক্ত পদে লিখিত, ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে কোন অভিযোগ না উঠলেও নিম্নমান সহকারী কাম – কম্পিউটার অপারেটর পদে ঐ দিনই নানান অভিযোগ উঠে প্রার্থীদের নিকট থেকে।

নিম্নমান সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদের পরীক্ষার্থী জহিরুল ইসলাম নামে এক প্রার্থী তার লিখিত অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করেন, নিয়ম বহির্ভূতভাবে যাকে এ পদের পরীক্ষায় ১ম দেখানো হয়েছে, সে কম্পিউটারে বাংলা টাইপ করতে পারে নাই, মৌখিক পরীক্ষায় প্রায় প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেন নাই। তাছাড়া সে ১০ বৎসর যাবৎ লেখা পড়ার সাথে কোন রকম সম্পর্ক নেই। অথচ নিয়োগ কমিটি এমন প্রার্থীকেই ১ম বানিয়েছেন এবং তাকে নিয়োগ দেওয়ার পায়তারা করছেন।

এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগকারী জহিরুল ইসলাম বলেন, আমরা সাধারণত নিয়োগ পরীক্ষার দিন রেজাল্ট দেওয়া হয়। কিন্তু সকল প্রস্তুতি থাকার পরও কৌশল অবলম্বন করে কর্তৃপক্ষ রেজাল্ট না দিয়ে আপনাদের ফোন করে জানিয়ে দেওয়া হবে ঘোষনা দেন। অথচ আমরা সবাই জানি কাকে ১ম করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মো. সরদার আব্দুস সালাম বলেন, নিয়োগ পরীক্ষার ৫ দিন পার হলেও এখন নিয়োগ কমিটি রেজাল্ট ঘোষনা করেননি। অথচ আন অফিসিয়ালি সকলেই যানে রেজাল্ট কেমন হয়েছে। একটি স্বনামধন্য বিদ্যালয়ের নিয়োগ পরীক্ষায় যথাযথ নিয়ম অমান্য করে অর্থের বিনিময়ে নিয়োগ দেওয়ার পায়তারা করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আছালত জামান খান আরিফ শনিবার দুপুরে বলেন,  নিয়োগ পরীক্ষা নিয়ে সকলের নম্বর পত্র ও সকল কাগজ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাদের নিকট পাঠালে তারপর নিয়োগ হবে।

সব খবর/ মানিকগঞ্জ/ ৭ জুলাই ২০১৮/ লিটন