সকলের কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চাই : প্রধানমন্ত্রী

মানুষের উন্নয়নে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে আগামী নির্বাচনে সবার কাছে ভোট চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘পায়রা বন্দর ডিপ সি-পোর্ট হিসেবে ব্যবহৃত হবে। এখান থেকে উত্তরবঙ্গ পর্যন্ত যাতে নদীপথে সরাসরি সহজে যোগাযোগ করা হয় সে ব্যবস্থা করা হবে। সকলের কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চাই।’

শনিবার দুপুরে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পুনর্বাসন প্রকল্প ‘স্বপ্নের ঠিকানা’সহ বেশ কিছু প্রকল্পের উদ্বোধন এবং পুনর্বাসিত পরিবারের সদস্যদের মধ্যে বাড়ির চাবি ও দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দক্ষিণ অঞ্চলটা সবসময় অবহেলিত ছিল। ১৯৯৬ সালের পর থেকেই উন্নয়নের কাজ শুরু করেছি। স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষাসহ সবক্ষেত্রে কাজ শুরু করেছি। এরপর ২০০৯ থেকে ২০১৮ প্রায় দশ বছর জনগণের ভোট নিয়ে সরকারে আছি আমরা। এই দশ বছরে নিরলসভাবে উন্নয়ন করে যাচ্ছি। এই অঞ্চলের উন্নয়নে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছি। ইতোমধ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন ২০ হাজার মেগাওয়াট বৃদ্ধি করেছি। এখানে বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের ফলে শুধু মানুষের ঘরে ঘরেই বিদ্যুৎ যাবে না, কারখানাও গড়ে উঠবে, কৃষির যান্ত্রিকীকরণ করবো। এ এলাকার মানুষ আর কষ্ট পাবে না। জীবনমান উন্নত হবে। এখানে যাতে ৩০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যায়, সে ব্যবস্থাই করছি।

এসময় তিনি আরও বলেন, এই এলাকায় এনএলজি টার্মিনাল করবো। এসব উন্নয়ন করতে যেয়ে মানুষ যাতে গৃহহীন হয়ে না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখছি। যেসব জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে, সেসব জমি প্রায় তিনগুণ বেশি দামে নিয়েছি। এই জমি নেওয়ার কারণে ১৩০ পরিবারকে ঘর তৈরি করে দিয়েছি, যাতে তারা পরিবার নিয়ে ভালোভাবে থাকতে পারে। তাদের সন্তানদের লেখাপড়া করাতে পারে। তাদের জন্য মসজিদ-স্কুলসহ সব ধরণের ব্যবস্থা করেছি। আশা করছি তারা সেখানে সুন্দরভাবে বসবাস করতে পারব।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, এই এলাকার মানুষদের নিরাপত্তার জন্য পায়রা বন্দরে সাইক্লোন সেন্টার তৈরি করে দিতে বলেছি। আমরা এখানে একটি নৌবাহিনীর ঘাঁটি নির্মাণ করছি। এছাড়াও একটি সেনানিবাসও তৈরি করছি।