খালেদা জিয়ার মামলা চলাকালে কারাগারের ছাদে দুইজন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট

নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিচারকাজ চলাকালে কারাগারের ছাদে দুইজন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে আদালতের কার্যক্রমে বিরতি দেয়া হয়। সেসময় কারাগারের ছাদ থেকে এক ব্যক্তি বৈদ্যুতিক তারে পড়ে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। তার পকেটে থাকা মোবাইল ফোনটি নিচে পড়ে যায়। তার পরপরই আরেকজন ব্যক্তিকে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

পরে কারাগারে উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়া প্রথম ব্যক্তির পরিচয় জানতে তার মোবাইল ফোনে সেভ করা একটি নাম্বারে যোগাযোগ করেন কারা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন।

ওই নম্বরে যোগাযোগের ভিত্তিতে তিনি জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ওই ব্যক্তির নাম বিজয়। বাড়ি নরসিংদীতে, ঢাকায় তিনি গোপীবাগে মেসে থাকেন, পড়াশোনা করেন। তবে কী কারণে, কিভাবে তিনি কারাগারের ছাদে গিয়েছিলেন সে বিষয়ে কিছুই জানাতে পারেন নি এই কারা কর্মকর্তা।

অন্যদিকে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়া দ্বিতীয় ব্যক্তির এসবির কনস্টেবল সরওয়ার বলে জানা গেছে। তবে তার বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চকবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামিম অর রশিদ জানান, হ্যাঁ কারাগারের ছাদে দুইজন ব্যক্তি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়েছেন। আশুরার অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে আমি হোসেনি দালানে আছি, তাই এখনো ঘটনাস্থলে যেতে পারিনি। তবে সেখানে টিম পাঠানো হয়েছে। বিদ্যুৎস্পৃষ্টদের নাম পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা চলছে এবং কেন তারা ছাদে উঠেছিলেন সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।