কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গৃহবধূর মাথা ফাটিয়ে দিল বখাটে

ঝিনাইদহ শহরের শিকারপুর গ্রামে রেখা (২২) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে মসিউর রহমান টুটুল নামে এক বখাটে। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে রেখার নিজ বাড়িতে তার উপর এ হামলা চালায় শিকারপুর গ্রামের মতলেব মুন্সির ছেলে টুটুল।

হামলায় রেখার বাম হাত ভেঙ্গে গেছে এবং লাঠির আঘাতে মাথা ফেটে গেছে। যাতে ৪টি সেলাই দিতে হয়েছে। খবর পেয়ে রাতেই ঝিনাইদহ সদর থানার এসআই রবি শংকর আহত রেখার বক্তব্য রেকর্ড করেছেন।
রেখার পিতা আব্দুল ওহাব জানান, তার মেয়ে স্বামীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় তার বাড়িতে থেকে শহরের আরাপপুর এলাকার একটি বিস্কুট ফ্যাক্টিরিতে কাজ করতো। কয়েক বছর ধরে শিকারপুর গ্রামের মসিউর রহমান টুটুল তার মেয়েকে খারাপ প্রস্তাব দিয়ে আসছে।
তিনি বলেন, টুটুলের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে সে বাড়ির উপর এসে আমার মেয়েকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এতে তার মাথা ফেটে গেলে ৪টি সেলাই দিতে হয় এবং বাম হাতটি ভেঙ্গে যায়।

সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আমিন মোস্তফা জানান, রেখার মাথায় চারটি সেলাই দিতে হয়েছে। তার একটি হাত ভেঙ্গে গেছে এবং শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার এসআই রবি শংকর জানান, রেখাকে বেদম মারপিট করা হয়েছে। তার মাথায় চারটি সেলাই দিতে হয়েছে। হাতের একটি চিকন হাড় ভেঙ্গে যেতে পারে। অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।