ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে শেখ হাসিনার ফোনালাপ, পাশে থাকার আশ্বাস

ভূমিকম্প ও সুনামির আঘাতে ইন্দোনেশিয়ায় জীবন ও সম্পদহানিতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশটির প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদোর সঙ্গে টেলিফোনে আলাপকালে প্রধানমন্ত্রী মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় এ শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন। এদিন সন্ধ্যা ৭টায় উইদোদোকে ফোন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় দুই দেশের শীর্ষ নেতার মধ্যে ১০ মিনিট আলাপ-আলোচনাা হয়। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এহসানুল করিম স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার আলাপে বিপদাপন্ন ইন্দোনেশিয়ার পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি নিহতদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানান ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘ইন্দোনেশিয়া একা নয়; বাংলাদেশও এ বিপদে ইন্দোনেশিয়ার পাশে আছে।’ এ মুহূর্তে ইন্দোনেশিয়ার কী ধরনের সাহায্য প্রয়োজন তা জানাতে জোকো উইদোদোকে আহ্বান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগকালীন মুহূর্তে বাংলাদেশ সব ধরনের সাহায্য পাঠাতে প্রস্তুত বলে জোজো উইদোদোকে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ইন্দোনেশিয়ার সুলাবেসি দ্বীপে ৭ দশমিক ৭ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভূমিকম্পের পর পরই সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়। পরে আবারও তা ফিরিয়ে নেওয়া হয়। সতর্কতা প্রত্যাহারের পরই উপকূলীয় শহর পালুতে একইদিন সুনামি আঘাত হানে।

ভূমিকম্প ও সুনামিতে ইন্দোনেশিয়ার সুলাবেসি দ্বীপে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৩৪ জনে। আহত হয়েছেন হাজার হাজার মানুষ। দেশটির জাতীয় দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার মুখপাত্র সুতপো পুরোও নগরহো মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) এ তথ্য জানিয়েছেন।